রেওয়ামিল কাকে বলে? রেওয়ামিলের উদ্দেশ্য | রেওয়ামিলের ধরন

রেওয়ামিল কাকে বলে?

রেওয়ামিল হল এমন একটি তালিকা যেখানে আয়, ব্যয়, সম্পদ ও দায় জাতীয় হিসাবগুলোর জেরগুলোকে অনুযায়ী সাজিয়ে হিসাবের শুদ্ধতা যাচাই করা হয়। সকল ব্যক্তিবাচক ও সম্পত্তিবাচক হিসাব এতে আনা হয়।জাবেদা ও খতিয়ানের লেনদেনগুলো সঠিকভাবে লিপিবদ্ধ হয়েছে কিনা তা রেওয়ামিলের মাধ্যমে জানা যায়।

রেওয়ামিলের উদ্দেশ্য

রেওয়ামিলের উদ্দেশ্যগুলি হল:

হিসাবের শুদ্ধতা যাচাই করা: রেওয়ামিল হল হিসাবের শুদ্ধতা যাচাই করার একটি গুরুত্বপূর্ণ হাতিয়ার। রেওয়ামিলের দুটি দিকের যোগফল সমান হলে, জাবেদা ও খতিয়ানে কোনো ভুল নেই বলে ধরে নেওয়া হয়।

আর্থিক বিবরণী প্রস্তুত করা: আর্থিক বিবরণী প্রস্তুত করার জন্য রেওয়ামিল একটি গুরুত্বপূর্ণ ভিত্তি। রেওয়ামিল থেকে আয় বিবরণী, ব্যয় বিবরণী, ব্যালেন্স শীট ইত্যাদি প্রস্তুত করা হয়।

ব্যবসায়ের আর্থিক অবস্থা পর্যালোচনা করা: রেওয়ামিল থেকে ব্যবসার আর্থিক অবস্থা সম্পর্কে ধারণা পাওয়া যায়। রেওয়ামিল থেকে সম্পদ, দায়, এবং মুলধন সম্পর্কে তথ্য পাওয়া যায়, যা ব্যবসার আর্থিক অবস্থা সম্পর্কে একটি সামগ্রিক চিত্র প্রদান করে।

রেওয়ামিল প্রস্তুত করার জন্য নিম্নলিখিত পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করা হয়:

খতিয়ানের সকল হিসাবের জেরগুলোকে দুটি ভাগে বিভক্ত করা হয়: ডেবিট ও ক্রেডিট।

  • ডেবিট দিকের সকল জেরগুলোকে যোগ করা হয়।
  • ক্রেডিট দিকের সকল জেরগুলোকে যোগ করা হয়।
  • দুটি দিকের যোগফল সমান হলে, রেওয়ামিল সঠিকভাবে প্রস্তুত করা হয়েছে বলে ধরে নেওয়া হয়।

রেওয়ামিলের ধরন

রেওয়ামিল দুটি ধরনের হতে পারে:

  • জের রেওয়ামিল: এই ধরনের রেওয়ামিলে শুধুমাত্র হিসাবের জেরগুলো থাকে।

  • মোট রেওয়ামিল: এই ধরনের রেওয়ামিলে হিসাবের জেরগুলোর সাথে সাথে হিসাবের মোট অংকগুলোও থাকে।

রেওয়ামিল একটি গুরুত্বপূর্ণ হিসাববিজ্ঞান নথি যা হিসাবের শুদ্ধতা যাচাই করার জন্য ব্যবহৃত হয়। রেওয়ামিলের মাধ্যমে আর্থিক বিবরণী প্রস্তুত করা হয় এবং ব্যবসার আর্থিক অবস্থা পর্যালোচনা করা হয়।

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url