Featured Post

বৃত্তিমূলক নির্দেশনা কাকে বলে? শিক্ষার বিভিন্ন পর্যায়ে বৃত্তিমূলক নির্দেশনার কার্যাবলি

বৃত্তিমূলক নির্দেশনা (Vocational Guidance) কাকে বলে? শিক্ষার তিনটি স্তর যথা: প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা। মূলত মাধ্যমিক শিক্ষা স্তর থেকেই শিক্ষার্থীকে বৃত্তির জন্য প্রস্তুত করা হয়। বিংশ শতাব্দীর প্রথম দিকে শিল্প ও সেবার ক্ষেত্রে নানা ধরনের বৃত্তির উদ্ভব হয়। বহুমুখী ও বৈচিত্র্যময় বৃত্তির সুযোগ তৈরি হয়। তাই মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদেরকে কোন পেশার জন্য কে উপযুক্ত তার জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়। যেহেতু সকল পেশার জন্য সকল শিক্ষার্থী শারীরিক ও মানসিকভাবে সমান পারদর্শী নয়, তেমনি শিক্ষার্থী ভেদে পেশার প্রতি আগ্রহ ও মনোভাবও এক রকম নয়। বৃত্তিমূলক নির্দেশনায় শিক্ষার্থীর কাজের প্রতি আগ্রহ, মনোভাব ও প্রবণতা অনুযায়ী নির্দেশনা দিলে সে উপযুক্ত পেশা নির্বাচনে সচেষ্ট হবে। এছাড়া বৃত্তিমূলক নির্দেশনার মাধ্যমে বিভিন্ন কর্মসংস্থান সম্পর্কে ধারণা প্রদানের জন্য বিদ্যালয়ে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে আমন্ত্রণ জানায়। বৃত্তিমূলক নির্দেশনার আওতায় শিক্ষার্থীদেরকে বিভিন্ন শিল্প-প্রতিষ্ঠানে নিয়ে তাদেরকে বিভিন্ন বৃত্তি সম্পর্কে পরিচিত করে তোলা হয়। শিক্ষার বিভিন্ন পর্যায়ে বৃত্তিমূলক নির্দেশনার কার্যাবলি শিক্ষার বিভিন

জোট সরকার কাকে বলে?

জোট সরকার কাকে বলে?

বিভিন্ন রাজনৈতিক দল সমূহের একজোট হয়ে সংখ্যা গরিষ্ঠতা প্রমাণ করে যে সরকার বানানো হয়।

জোটবদ্ধ রাজনীতিঃ ভারতের দল ব্যবস্থার সাম্প্রতিক প্রবণতা হলো জোট রাজনীতি। তবে এই জোট রাজনীতি ভারতে নতুন কিছু নয়। এর উৎস নিহিত আছে ভারতীয় রাজনীতির ঐতিহ্যের মধ্যেই। কে.কে ঘাই তাঁর Indian Government and Politics গ্রন্থে মন্তব্য করেছেন, ভারতে জোট রাজনীতির ইতিহাস প্রাক-স্বাধীনতা পর্বের মধ্যেও খুঁজে পাওয়া যায়। ১৯৩৭ সালে নির্বাচনের পর পাঞ্জবে যে সরকার গড়ে তোলা হয়, তা ছিল এক ধরনের জোট সরকারই।

১৯৪৬ সালে ভারতে যে অন্তর্বতীকালীন সরকার গঠিত হয়, সেটিও ছিল এক ধরনের জোট সরকারই, কারণ এই সরকারের মধ্যে স্থান পেয়েছিলেন জাতীয় কংগ্রেস, মুসলিম লিগ, অকালি দল এবং অন্যান্য গোষ্ঠীর প্রতিনিধিগণ।

কোনো কোনো বিশেষজ্ঞের মতে, ১৯৫২ সালে অনুষ্ঠিত প্রথম নির্বাচনে যে জাতীয় কংগ্রেস দলটি বিপুল সংখ্যা গরিষ্ঠতা লাভ করে, সেটি ছিল আসলে জোটেরই প্রতীক। কেউ কেউ আবার জাতীয় কংগ্রেসকে দল না বলে 'ব্যবস্থা' বলার পক্ষপাতী ছিলেন। 

জোট রাজনীতির কারণ

ভারতে জোট রাজনীতির উৎপত্তি ও বিকাশের কারণগুলি নিম্নলিখিতভাবে আলোচনা করা হলোঃ 

১) ভারতীয় সমাজ হলো বহুত্ববাদী সংস্কৃতি ও সভ্যতার এক অনবদ্য রূপ। ভারতে মিশ্র সংস্কৃতির এক সুমহান ঐহিত্য রয়েছে। যতদিন পর্যন্ত কংগ্রেস দল এই বৈচিত্র্যের মধ্যের ঐক্যকে ধরে রাখতে পেরেছিল, ততদিন ওই দল জনসাধারণের কাছে গ্রহণযোগ্যতা পেয়েছিল। অন্যভাবে বললে, যখন থেকে কংগ্রেস দল ভারতের বহুধা বিন্যস্ত সমাজের প্রকৃতি রক্ষায় ব্যর্থ হয়েছে, তখন থেকেই আঞ্চলিক দলগুলির প্রাধান্য বেড়েছে এবং ফলত জোট রাজনীতির উদ্ভব ঘটতে শুরু করেছে।

২) ভারতে জোট রাজনীতির অন্যতম প্রধান কারণ হলো দলীয় ব্যবস্থার আঞ্চলিকীকরণ। ভারতের বিভিন্ন অঞ্চলে রয়েছে বিভিন্ন ভাষা, সংস্কৃতি, ঐতিহ্য, প্রথা, বিশ্বাস ইত্যাদি। আঞ্চলিক দলগুলি সংশ্লিষ্ট অঞ্চলের সংস্কৃতি ও আবেগকে গুরুত্ব দেয়। তাছাড়া তারা জাতীয় সমস্যা অপেক্ষা আঞ্চলিক সমস্যাগুলিকে বেশি প্রাধান্য দেয়।

৩) ভারতে জোট রাজনীতির উদ্ভব ও বিকাশে কেন্দ্রাতিগ শক্তিগুলির প্রভাব বৃদ্ধিও যথেষ্টদায়ী। ভারতীয় রাজনীতিতে কেন্দ্রাতিগ শক্তিগুলির সঙ্গে কেন্দ্রাতিগ শক্তিগুলির দ্বন্দ্ব বহু দিনের। তাই ব্রিটিশ আমলেও ভারতে যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামো প্রবর্তিত থাকতে দেখা যায়। স্বাধীনতার পর ভারত যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোকেই মেনে নেয়। তবে কেন্দ্রে কংগ্রেস সরকার প্রথম থেকেই রাজ্যগুলির দাবিকে অবহেলা করে কেন্দ্রকে শক্তিশালী করার চেষ্টা করেছে।

৪) জোট রাজনীতির উদ্ভব ও বিকাশে রাজনৈতিক দলগুলির মতাদর্শহীনতাও অনেকাংশে দায়ী। তত্ত্বগতভাবে রাজনৈতিক দলগুলি বড়ো বড়ো উচ্চ আদর্শ ও নীতির কথা বললেও কার্যত তাদের প্রধান উদ্দেশ্য হলো যে কোনো প্রকারে ক্ষমতা অর্জন করা এবং ক্ষমতায় টিকে থাকা। ক্ষমতা লাভ করা বা ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য তারা ন্যায়নীতি বিসর্জন দিয়ে যে কোনো প্রকার বোঝাপড়ার মধ্যে দিয়ে জোট গঠনে আগ্রহী হয়ে ওঠে।

আরও পড়ুনঃ

👉  যৌথ পরিবার কাকে বলে?

👉  আন্তর্জাতিক সম্পর্ক ও আন্তর্জাতিক রাজনীতির মধ্যে পার্থক্য দেখাও।

👉  আন্তর্জাতিক রাজনীতি কাকে বলে?

👉  নয়া বিশ্বব্যবস্থা কাকে বলে? নয়া বিশ্বব্যবস্থার বৈশিষ্ট্য

সর্বাধিক পঠিত পোষ্টসমূহ

প্রাতিষ্ঠানিক পত্র কাকে বলে?

নদী শাসন কাকে বলে?

উদ্ভিদ কোষ ও প্রাণী কোষের মধ্যে পার্থক্য

প্রতিবেদন কি? প্রতিবেদন কাকে বলে?

ডিজিটাল বাংলাদেশ কাকে বলে?

লেখচিত্র কাকে বলে? লেখচিত্রের শ্রেণিবিভাগ

মাটি কাকে বলে?

অধিকার কাকে বলে?

ব্যবস্থাপনার বৈশিষ্ট্য ব্যাখ্যা কর।

প্রবন্ধ কাকে বলে? প্রবন্ধের শ্রেণীবিভাগ, প্রবন্ধের বৈশিষ্ট্য